নেত্রকোণায় কমছে পরীক্ষা, বাড়ছে শনাক্ত

নেত্রকোণায় কমছে পরীক্ষা, বাড়ছে শনাক্ত

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, শনিবার নেত্রকোণায় নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে শনাক্তের হার ৩৩ দশমিক ৮০ শতাংশে উঠেছে। যা করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পর থেকে জেলায় শনাক্তের সর্বোচ্চ হার।

করোনাভাইরাসের চলমান দ্বিতীয় ঢেউয়ে নেত্রকোণায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। জেলায় সংক্রমণ বাড়ার হার প্রথম ঢেউয়ের হারকে ছাড়িয়ে গেছে। তবে করোনা শনাক্তে স্থানীয়ভাবে কমেছে নমুনা পরীক্ষা।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, শনিবার নেত্রকোণায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ৩৩ দশমিক ৮০ শতাংশে উঠেছে। যা করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পর থেকে জেলায় শনাক্তের সর্বোচ্চ হার।

এর আগে জেলায় প্রথম ঢেউয়ে সর্বোচ্চ শনাক্ত হয়েছিল গত বছরের ২৪ জানুয়ারি। তখন শনাক্তের হার ছিল ২৬ দশমিক ৮ শতাংশ। সেদিন ২৫৩ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৬৬ জনের দেহে করোনাভাইরাস মিলেছিল।

সর্বশেষ শনিবার জেলায় ১৭২টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। সেখানে করোনা সংক্রমণ শনাক্ত হয় ৪৮ জনের শরীরে। আক্রান্তদের মধ্যে সদর উপজেলার ২৮জন, কলমাকান্দার ৭জন, দুর্গাপুরের ৬জন, আটপাড়ার ৪জন এবং মোহনগঞ্জ, বারহাট্রা, খালিয়াজুরির ১জন করে রয়েছেন।

সিভিল সার্জন সেলিম মিয়া বলেন, 'অসতর্কতা আমাদের ঝুঁকিতে ফেলে দিচ্ছে। স্বাস্থ্যবিধি না মানার প্রবণতাই সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার বড় কারণ। করোনা পরিস্থিতি দিন দিন অবনতির দিকে যাচ্ছে।'

জেলা করোনা নিয়ন্ত্রণ কমিটির সভা রয়েছে। সেখানে সার্বিক পরিস্থিতি ও করণীয় নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে। জনগনকে স্বাস্থ্যবিধি মানাতে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে বলেও জানান সিভিল সার্জন।

নেত্রকোণা জেলায় এ পর্যন্ত এক হাজার ৪২৮জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাদের মধ্যে ২৯জন মারা গেছেন। সুস্থ হয়েছেন এক হাজার ১৩৪জন। বর্তমানে বাড়ি ও হাসপাতাল মিলিয়ে ২৯৪জন করোনা রোগী চিকিৎসাধীন আছেন।

আরও পড়ুন:
ভারতে বাড়ল সংক্রমণ, মৃত্যু
খুলনার তিন হাসপাতালে এক দিনে আরও ১৭ মৃত্যু
রাজশাহীতে ৪৫ দিনের শিশুর করোনা পজিটিভ
রাজশাহী মেডিক্যালে কমেছে মৃত্যু, শনাক্ত
সংক্রমণ বাড়ছে, গোপালগঞ্জে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ৬৩

শেয়ার করুন

মন্তব্য