20201002104319.jpg
ফ্রান্সের বড় জয়, স্পেন-ইতালি ম্যাচ ড্র

ফ্রান্সের বড় জয়, স্পেন-ইতালি ম্যাচ ড্র

বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে ইউক্রেইনকে। মলডোভাকে ৬-০ গোলে হারিয়েছে ইতালি। গোলশূন্য ড্র করেছে পর্তুগাল ও স্পেন।

ঘরোয়া লিগগুলোর সাপ্তাহিক বিরতিতে রাতে ইউরোপের মাঠে ছিল আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচের পসরা। বিশ্বকাপ বাছাই পর্ব ও ইউরোপিয়ান নেশনস লিগের জন্য নিজেদের ঝালিয়ে নিতে মাঠে নেমেছিল বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স, ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল, সাবেক তিন চ্যাম্পিয়ন ইতালি, জার্মানি ও স্পেন।

সবচেয়ে বড় জয় পেয়েছে ফ্রান্স। নিজেদের মাঠে বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা ৭-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে ইউক্রেইনকে। প্যারিসের স্তাদে দি ফ্রান্সে ম্যাচের নয় মিনিটে স্বাগতিকদের গোলবন্যার শুরু করেন এডুয়ার্ডো কামাভিঙ্গা। প্রথমার্ধে এরপর আরও তিন গোল পায় 'ল্য ব্লু'। 

জোড়া গোল করেন ফ্রান্সের পক্ষে ১০০ তম ম্যাচ খেলতে নামা অলিভিয়ে জিঁরু। একটি গোল ছিল আত্মঘাতী। দুই গোল করে ফ্রান্সের পক্ষে গোলসংখ্যায় জিঁরু ছাড়িয়ে গেছেন কিংবদন্তি প্লে-মেকার মিশেল প্লাতিনিকে। তার উপরে এখন শুধু আছেন থিয়েরি অঁরি। অঁরির গোল সংখ্যা ৫১। রাতের ম্যাচের পর ৪২ গোল নিয়ে জিঁরু আছেন দুইয়ে।

বিরতির পর আরও তিন গোল যোগ করেন জিরুঁর সতীর্থরা। করেন্টিন টোলিসো, কিলিয়ান এমবাপে আর আতোঁয়া গ্রিজমান স্কোরশিটে নাম ওঠালে বড় জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফ্রান্স।

তাদের মতো বড় জয়ে পেয়েছে আরেক ইউরোপিয়ান জায়ান্ট ইতালি। অনিয়মিত খেলোয়াড়দের দিয়ে একাদশ সাজালেও দূর্বল মলডোভাকে ৬-০ গোলে হারিয়েছে রবার্তো মানচিনির দল। ফ্লোরেন্সে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচেও হয়েছে অন্যরকম রেকর্ড। 

ইতালির হয়ে ম্যাচে জাতীয় দলে অভিষেক হয় ৩৩ বছর বয়সী ফ্রানচেস্কো চাপুতোর। অভিষেক ম্যাচেই গোল করেন সেরি আ-তে সাসুওলোর হয়ে খেলা এই ফরোয়ার্ড। এতে করে আজ্জুরিদের হয়ে সবচেয়ে বেশী বয়সে অভিষেকে গোল করার রেকর্ড নিজের করে নেন তিনি।

চাপুতোর গোলের আগে অবশ্য দলকে লিড এনে দেন, ব্রায়ান ক্রিসতানতে। স্টেফান আল শারাউই আরও দুই গোল যোগ করলে, ৪-০ ব্যবধানে এগিয়ে থেকে প্রথমার্ধ শেষ করে ইতালি। বিরতির পর আরও দুই গোল আসে ভাচেস্লাভ পসমাক ও দমিনিকো বেরার্দির পা থেকে।

বুধবার রাতে সবচেয়ে বড় ম্যাচ ছিল লিসবনে। ক্রিস্টিয়ানো রোনালডোর পর্তুগাল মুখোমুখি হয় ২০১০ এর বিশ্বচ্যাম্পিয়ন স্পেনের। উপভোগ্য খেলা উপহার দিলেও, দুই দলের ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় ম্যাচ শেষ হয়েছে গোলশূন্য ড্রয়ে। স্বাগতিকদের হয়ে সহজ সুযোগ নষ্ট করেন রোনালডো, রেনাতো সানচেস এবং জোয়াও ফেলিক্স। আরেক ম্যাচে ৩-৩ গোলে ড্র করেছে জার্মানি এবং তুরস্ক এবং নেদারল্যান্ডসকে ১-০ গোলে হারিয়েছে মেক্সিকো।  

     

শেয়ার করুন

মন্তব্য