জন্মদিনে সুশান্তের স্বপ্ন পূরণ করলেন বোন শ্বেতা

বোন শ্বেতার সঙ্গে সুশান্ত সিং রাজপুত

জন্মদিনে সুশান্তের স্বপ্ন পূরণ করলেন বোন শ্বেতা

ইনস্টাগ্রামে শ্বেতা এ খবরটি জানিয়ে লিখেছেন, ‘আমি আনন্দিত যে ভাইয়ের ৩৫তম জন্মদিনে তার অনেকগুলো ইচ্ছার মধ্যে একটি বাস্তবায়নের পথে। ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া, বার্কলেতে সুশান্ত সিং রাজপুত মেমোরিয়াল ফান্ডে ৩৫ হাজার ডলার রাখা হয়েছে। জ্যোতির্বিজ্ঞানে আগ্রহী যে কেউ এর জন্য আবেদন করতে পারবে।’ 

সুশান্ত সিং রাজপুতের আকস্মিক মৃত্যু আজও কেউ মেনে নিতে পারেনি। আলোচিত এ অভিনেতার মৃত্যুর পর প্রথম জন্মদিন বৃহস্পতিবার ২১ জানুয়ারি তাকে নানাভাবে স্মরণ করেছে তার পরিবার, স্বজন ও সহকর্মীরা।

সুশান্তের বোন শ্বেতা সিং কৃতি ভাইয়ের ৩৫তম জন্মদিনে তার অপূর্ণ একটি ইচ্ছা পূরণ করেছেন। সুশান্তের ইচ্ছা ছিল, তরুণ প্রজন্মের জন্য নতুন কোনো শিক্ষা পদ্ধতি বের করা, যেখানে শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে তাদের পছন্দের যে কোনো বিষয়ের দক্ষতা অর্জন করতে পারবে।

সুশান্তের এ স্বপ্ন পূরণে তার বোন শ্বেতা যুক্তরাষ্ট্রের বার্কলের ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়ার পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের জন্য ফান্ড তৈরি করেছেন। ৩৫ হাজার ডলারের এই ফান্ডের নাম দেয়া হয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুত মেমোরিয়াল ফান্ড। এতে অগ্রাধিকার পাবেন জ্যোতির্বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীরা। কারণ সুশান্তের পছন্দের বিষয় ছিল জ্যোতির্বিজ্ঞান।

ইনস্টাগ্রামে শ্বেতা এ খবরটি জানিয়ে লিখেছেন, ‘আমি আনন্দিত যে ভাইয়ের ৩৫তম জন্মদিনে তার অনেকগুলো ইচ্ছার মধ্যে একটি বাস্তবায়নের পথে। ইউনিভার্সিটি অফ ক্যালিফোর্নিয়া, বার্কলেতে সুশান্ত সিং রাজপুত মেমোরিয়াল ফান্ডে ৩৫ হাজার ডলার রাখা হয়েছে। জ্যোতির্বিজ্ঞানে আগ্রহী যে কেউ এর জন্য আবেদন করতে পারবে।’

সহকর্মীদের মধ্যে অনেকেই সুশান্তকে মনে করেছেন এই দিনে। তাদের মধ্যে ভূমি পেন্ডেরকর, রাজকুমার রাও, সিদ্ধার্থ গুপ্ত, মনোজ বাজপায়ি, একতা কাপুর, পুলকিত সম্রাট ও কিয়ারা আদভানি আছেন।

গত বছর ১৪ জুন নিজের ব্যান্ড্রার বাড়িতে সুশান্ত সিং রাজপুতের লাশ উদ্ধার হয়। এ ঘটনায় সুশান্তের বাবা কে কে সিং সুশান্তের বান্ধবি রিয়া চক্রবর্তীকে দোষী করে পাটনা থানায় মামলা করেন। মামলার কোনো সুরাহা হয়নি।

শেয়ার করুন

মন্তব্য

আবার মা হচ্ছেন গ্যাল গ্যাদত

আবার মা হচ্ছেন গ্যাল গ্যাদত

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করা গ্যাল গ্যাদতের ছবি

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্টে গ্যাদত জানান, তিনি আবারও মা হতে চলেছেন। ক্যাপশনে লেখেন, ‘আবারও শুরু।’

তৃতীয়বারের মতো মা হতে চলেছেন ওয়ান্ডার উইম্যান অভিনেত্রী গ্যাল গ্যাদত।

সোমবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার ও ইনস্টাগ্রামে নিজ অ্যাকাউন্টে ছবি পোস্ট করে তিনি এ খবর জানান।

এর আগের দিনই তাকে দেখা গেছে গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডসের অনুষ্ঠানে অংশ নিতে। সে অনুষ্ঠানে তিনি পরেছিলেন সাদা রঙের গিভেঞ্চি সুইং মিনি ড্রেস। এই ফোলানো ড্রেসের কারণে তার বেবি বাম্প দৃশ্যমান ছিল না।

অনুষ্ঠানের পরদিনই গ্যাদত জানিয়ে দিলেন, তিনি আবারও মা হতে চলেছেন। পোস্টের ক্যাপশনে লেখেন, ‘আবারও শুরু।’

ছবিতে গ্যাল গ্যাদতকে দেখা যায় সপরিবারে। স্বামী জ্যারন ভারসানো ও সঙ্গে দুই মেয়ে ৯ বছরের আলমা এবং ৩ বছরের মায়ার সঙ্গে থাকা ছবিতে তাকে হাস্যোজ্জ্বল দেখা যায়।

গোল্ডেন গ্লোবসের ৭৮তম আসরে গ্যাল গ্যাদত

গ্যাল গ্যাদতের সহকর্মীরাও শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তাকে। তাদের মধ্যে আছেন হিলারি সোয়াঙ্ক ও জেসন মোমোয়া।

গ্যাল গ্যাদতের পরবর্তী সিনেমার মধ্যে আছে জ্যাক স্নাইডার’স জাস্টিস লিগ। এ সিনেমায় আরও আছেন জ্যারেড লেটো, হেনরি ক্যাভিল, রে ফিশার, জেসন মোমোয়া, বেন অ্যাফলেক ও ইজরা মিলার।

গ্যাল গ্যাদত অভিনীত সর্বশেষ সিনেমা ছিল ওয়ান্ডার উইম্যান ১৯৮৪। বক্স অফিস অনুযায়ী সিনেমাটি বিশ্বব্যাপী ১৬ কোটি ১৩ লাখ ডলার আয় করে।

শেয়ার করুন

আমার অপেক্ষা যেন শেষ হচ্ছে না: অমনি

আমার অপেক্ষা যেন শেষ হচ্ছে না: অমনি

অমনি

অমনি বলেন, ‘আমি ক্ষিপ্র স্বভাবের না। কিন্তু চরিত্রের প্রয়োজনে আমি তেমন হতে পারব।’

পুরো নাম সৈয়দা তিথী অমনি। সিনেমায় নতুন। কিন্তু মডেলিং জগতে অমনির অনেক নামডাক। আলাপের একপর্যায়ে ‘ইন্ডাস্ট্রিতে নতুন’ কথাটি শুনে কিছুক্ষণ চুপ করে থেকে বলেছিলেন, ‘তাই তো নতুনই তো।’ কথাটি হাসি মুখে বললেও ভেতরে ভেতরে নিজেকে সামলে নিচ্ছিলেন হয়তো।

দেশের প্রায় সব বড় ফ্যাশন হাউসের মডেল ফটোগ্রাফিতেই দেখা গেছে অমনিকে। ইচ্ছা ছিল সিনেমায় অভিনয় করার। কিন্তু যেনতেন চরিত্র হলে হবে না। বুদ্ধিদীপ্ত, গ্ল্যামারাস, অ্যাকশনের চরিত্র তার পছন্দ। একপর্যায়ে মিলেও গেল। এমআরনাইনমাসুদ রানা সিনেমায় স্পাই চরিত্রে অভিনয় করতে যাচ্ছেন তিনি।

নিউজবাংলাকে অমনি বলেন, ‘স্পাই চরিত্র নিয়ে আমার আলাদা দুর্বলতা আছে। তাই এমআরনাইন সিনেমায় অভিনয়ের জন্য অডিশন দিই এবং নির্বাচিত হই। এটা তাও এক বছর আগের কথা।

‘মাসখানেক আগে আমাকে জানানো হয় মাসুদ রানা সিনেমাতেও একই চরিত্রে অভিনয় করতে হবে। আমি রাজি হয়েছি।’


দুটি সিনেমার জন্য আলাদা করে পারিশ্রমিক দেবে তো, এমন প্রশ্নে অমনি শুধু হাসলেন, উত্তর দেননি।

দ্রুতই কথা সরিয়ে জানতে চাওয়া হলো, তাহলে কি রোমান্টিক চরিত্রে অভিনয় করবেন না?

‘সেটা দেখা যাক। সিনেমায় আমার এগিয়ে যাবার ইচ্ছা আছে। কিন্তু আমার মনের মতো কাজ হলেই তাতে যুক্ত হব। তা ছাড়া এখন এমআরনাইনমাসুদ রানা সিনেমা নিয়ে বসবাস করছি। এসব নিয়ে তেমন ভাবছি না।’ বললেন অমনি।

অমনি মনে করছেন ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি থেকে শুরু করে সিনেমার নবনীতা চরিত্রটির জন্য তার লুক, সৌন্দর্য এবং উচ্চতা খুব কাজে দিয়েছে। কিন্তু সিনেমায় তার যে চরিত্র, সেই চরিত্রের জন্য শুধু সৌন্দর্য এবং উচ্চতা দিয়ে হবে না। তীক্ষ্ণ বুদ্ধির প্রয়োজন আছে, প্রয়োজন আছে ক্ষিপ্র স্বভাবের।


এ প্রসঙ্গে অমনি বলেন, ‘আমি ক্ষিপ্র স্বভাবের না। কিন্তু চরিত্রের প্রয়োজনে আমি তেমন হতে পারব। সিনেমায় চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পরপরই আমাকে স্ক্রিপ্ট দেয়া হয়েছে। আমি চরিত্রটা বুঝে নিয়েছি। অভিনয় প্র্যাকটিস করছি। সঙ্গে অ্যাকশন, ও বডি ল্যাঙ্গুয়েজের টেকনিক রপ্ত করছি।’

এসব প্রশিক্ষণ ও চর্চার জন্য প্রতিদিন কয়েক ঘণ্টা করে ব্যয় করতে হয় অমনিকে। তবে কিছু চর্চা তার আগে থেকেই ছিল।

সে কারণেই হয়তো ক্যামেরার সমানে দাঁড়াতে তেমন কোনো চাপ অনুভব করছেন না। বরং অপেক্ষা করছেন কখন শুটিং শুরু হবে আর কখন তিনি অভিনয় শুরু করবেন। ‘কাজটা সহজ না, কিন্তু আমার অপেক্ষা ফুরাচ্ছে না। অপেক্ষা করছি কখন ক্যামেরার সামনে দাঁড়াব।’ বলেন অমনি।


২০১৬ সালে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় আসেন অমনি। পাঁচ বছরেই মডেলিংয়ে ভালো জায়গা করে নিয়েছেন তিনি। এর পেছনে আছে পরিশ্রম এবং একাগ্রতা।

অমনি বলেন, ‘অনেকে মনে করেন মডেলিংয়ে কোনো পরিশ্রমই নেই। শুধু মেকআপ করে ছবি তোলা বা, র‌্যাম্পে হাঁটা। কিন্তু আমাদের সবাইকে যে কত পরিশ্রম করতে হয়, তা কেউই জানে না। আমরা অনেক আনন্দ নিয়ে কাজটি করি। তাই সবাই মনে করে যে, আমরা শুধু আনন্দই করি।’

অ্যাকাউন্টিংয়ে মাস্টার্স করা অমনি পাঁচ বছর আগে ঢাকায় এসেছিলেন আরও কিছু লেখাপড়া করার জন্য। চট্টগ্রামেই তিনি কিছু মডেলিংয়ের কাজ করেছিলেন। সেই অভিজ্ঞতাকে পুঁজি করে ঢাকাতেও কাজ শুরু করেন।


‘এখন মডেলিংই আমার পেশা ও নেশা। এর পাশাপাশি আমার আরেকটি ব্যবসা রয়েছে। সেটাও ভালোই চলছে।’ বলেন অমনি।

অমনি ব্যবসায়ী পরিবারের মেয়ে। ছোটবেলা থেকে শাসনের মধ্যেই বড় হয়েছেন। তাই খুব বেশি একটা দুষ্টুমি বা অবাধ্য হওয়ার সুযোগ ছিল না।

আর বন্ধুরা কেমন ছিল? অমনি বললেন, ‘আমার বরাবরই বন্ধু কম। চট্টগ্রাম ও ঢাকা মিলে কিছু বন্ধু আছে আমার। তাদের সঙ্গে মাঝে মাঝে যোগাযোগ হয়। কয়েকজনের সঙ্গে দেখা হয়। আর কিছু বন্ধু দেশের বাইরে চলে গেছে।’

সিনেমায় অভিনয় করা নিয়ে বন্ধুরা কী বলছে অমনিকে, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘বন্ধু ও সহকর্মীরা আমাকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছে। তারা সবাই অনেক খুশি যে, আমি সিনেমায় অভিনয় করছি।’


অমনি এর আগে অভিনয় করেছেন ব্যাড বয়েজ নামের ওয়েব সিরিজে। যেটি পরিচালনা করেছিলেন সৈকত নাসির।

১২ মার্চ পর্যন্ত মাসুদ রানা সিনেমার দৃশ্যধারণ চলবে চট্টগ্রামে। সেখান থেকে অমনি ফিরবেন আরও কিছু নতুন অভিজ্ঞতা নিয়ে। যা তাকে আরও আত্মবিশ্বাসী করে তুলবে বলে মনে করেন অমনি।

শেয়ার করুন

স্ফুলিঙ্গর ট্রেলারে দুই সময়ের গল্প

স্ফুলিঙ্গর ট্রেলারে দুই সময়ের গল্প

স্ফুলিঙ্গ সিনেমার পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত

মূলত দুই সময়ের তরুণদের দেশের জন্য ভালোবাসার এবং কাজ করতে এগিয়ে আসার গল্পই স্ফুলিঙ্গ। সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে ১৯ মার্চ। তবে এর আগে ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সিনেমাটির বিশেষ প্রদর্শনী হবে।

তৌকীর আহমেদ পরিচালিতস্ফুলিঙ্গ সিনেমার ট্রেলার প্রকাশ হয়েছে সোমবার রাতে। ট্রেলার দেখে স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে সিনেমায় ১৯৭১ ও বর্তমান সময়কে দেখানো হয়েছে।

মূলত দুই সময়ের তরুণদের দেশের জন্য ভালোবাসার এবং কাজ করতে এগিয়ে আসার গল্পই স্ফুলিঙ্গ। সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে ১৯ মার্চ। তবে এর আগে ১৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে সিনেমাটির বিশেষ প্রদর্শনী হবে।

স্ফুলিঙ্গ সিনেমায় অভিনয় করেছেন আবুল হায়াত, মামুনুর রশীদ, শহীদুল আলম সাচ্চু, ফজলুর রহমান বাবু, শ্যামল মওলা, রওনক হাসান, জাকিয়া বারী মম ও পরীমনি।

সিনেমাটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি দেয়া নিয়ে কোনো দুঃশ্চিন্তা কাজ করছে কি না জানতে চাইলে তৌকীর আহমেদ নিউজবাংলাকে বলেছিলেন, ‘প্রথম দিকে দর্শকরা সাড়া কম দিতেই পারেন। তবে সিনেমাটি যদি ভালো হয় তাহলে হলেই হোক বা অনলাইন প্ল্যাটফর্মে, তারা অবশ্যই দেখবেন।’

স্ফুলিঙ্গ সিনেমার শুটিং শুরু হয় গত ১১ ডিসেম্বর। ২৩ দিনেই শেষ হয় শুটিং।

স্ফুলিঙ্গ সিনেমার দৃশ্যে শ্যামল মওলা ও পরীমনি। ছবি: সংগৃহীত

স্ফুলিঙ্গ সিনেমার অফিশিয়াল ফেসবুক পেজে রোববার জানানো হয়, এ সিনেমায় প্রথম বারের মতো অভিনয় করেছেন সংগীতশিল্পী পিন্টু ঘোষ। অভিনয়ের পাশাপাশি তিনি এ সিনেমার সংগীত পরিচালনা করেছেন। ট্রেলারে পরীমনিকেও দেখা গেছে স্টেজে গান করতে।

স্ফুলিঙ্গ সিনেমার দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত

স্ফুলিঙ্গ সিনেমার দৃশ্যে পরীমনি, শ্যামল মওলা ও পিন্টু ঘোষ। ছবি: সংগৃহীত

শেয়ার করুন

বিজেপিতে যোগ দিলেন শ্রাবন্তী

বিজেপিতে যোগ দিলেন শ্রাবন্তী

বিজেপির পতাকা হাতে শ্রাবন্তী। ছবি: সংগৃহীত

শ্রাবন্তী উত্তরে বলেন, ‘মোহভঙ্গের কোনো বিষয় নেই। তবে মনে করছি বিজেপিই প্রকৃত পরিবর্তন আনতে পারবে। তাই মোদিজির অনুপ্রেরণায় বিজেপিতে যোগ দিলাম।’ 

রাজনীতিতে নামলেন কলকাতার অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। বাংলাদেশের সিনেমাতেও অভিনয় করেছেন তিনি। অভিনয় করেছেন যৌথ প্রযোজনার সিনেমাতেও। এদেশের দর্শকদের কাছে তিনি বেশ জনপ্রিয়।

এবার অভিনেত্রী থেকে শুধু নেত্রী হবার দৌড়ে নেমেছেন তিনি। নাম লিখিয়েছেন রাজনীতিতে। ভারতীয় জনতা পার্টিতে (বিজেপি) যোগ দিয়েছেন শ্রাবন্তী।

ভারতের একাধিক সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে, বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ ও কৈলাশ বিজয়বর্গীয়র উপস্থিতিতে তিনি দলে যোগ দেন।

শ্রাবন্তী বলেন, “এটা একেবারেই নতুন একটা যাত্রা। বাংলাকে ‘সোনার বাংলা’ গড়ে তোলাই লক্ষ্য।’’

তিনি আরও বলেন, ‘বিজেপিতে যোগ দিতে পেরে আমি আপ্লুত। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অনুসরণ করি। আমাকে যোগ্য মনে করায় বিজেপি নেতৃত্বকে ধন্যবাদ।’


এর আগে আরও অনেক অভিনয়শিল্পীরা যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। তাদের মধ্যে আছেন, হিরণ চট্টোপাধ্যায়, যশ দাসগুপ্ত, পায়েল সরকার ও পাপিয়া অধিকারী।

কৈলাশ বিজয়বর্গীয় বলেন, ‘শ্রাবন্তী দলে যোগ দেয়ায় ভালোই হবে। শ্রাবন্তী ভোটে দাঁড়াবেন কিনা সেটা পরে ঠিক হবে। দেখতে থাকুন ভবিষ্যতে আরও কী কী হয়।’


মমতা বন্দোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত শ্রাবন্তী। তৃণমূল ও রাজ্য সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচিতেও দেখা গেছে এ অভিনেত্রীকে। কিন্তু কেন এই মোহভঙ্গ?

উত্তরে তিনি বলেন, ‘মোহভঙ্গের কোনো বিষয় নেই। তবে মনে করছি বিজেপিই প্রকৃত পরিবর্তন আনতে পারবে। তাই মোদিজির অনুপ্রেরণায় বিজেপিতে যোগ দিলাম।’


শেয়ার করুন

মার্চে আসছে জয়ার ‘অলাতচক্র’

মার্চে আসছে জয়ার ‘অলাতচক্র’

অলাতচক্র সিনেমার পোস্টার। ছবি: সংগৃহীত

জয়া আহসান ও আহমেদ রুবেল অভিনীত অলাতচক্র সিনেমাটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে ১৯ মার্চ। আহমেদ ছফার উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত এ সিনেমাটি পেয়েছে সরকারি অনুদান।

কথাসাহিত্যিক আহমেদ ছফার ‘অলাতচক্র’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে সিনেমা। তার নামও রাখা হয়েছে অলাতচক্র। জয়া আহসান ও আহমেদ রুবেল অভিনীত সিনেমাটি মুক্তি পাচ্ছে ১৯ মার্চ।

বিষয়টি ফেসবুকে জানিয়েছেন জয়া আহসান নিজেই। এটি বাংলাদেশের প্রথম থ্রিডি সিনেমা। এটি পরিচালনা করেছেন হাবিবুর রহমান। মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে নির্মিত এ সিনেমাটি পেয়েছে সরকারি অনুদান।

সিনেমাটি সেন্সর পায় ১৫ ডিসেম্বর। ২১ ফেব্রুয়ারি জয়া তার ফেসবুক পেজে সিনেমাটির ৪২ সেকেন্ডের একটি টিজার প্রকাশ করেন।

১৯ মার্চ সিনেমাটির মুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করে জয়া তার ফেসবুকে লেখেন, ‘শুভমুক্তি ১৯ মার্চ, ২০১৯। মহান মুক্তিযুদ্ধের ৫০ বছর পূর্তির এই মাহেন্দ্রক্ষণে মুক্তি পেতে যাচ্ছে মুক্তিযুদ্ধের পটভূমিতে আহমেদ ছফার উপন্যাস অবলম্বনে বাংলা ভাষায় নির্মিত প্রথম থ্রিডি চলচ্চিত্র অলাতচক্র।’


চলতি বছরে জয়া অভিনীত প্রথম সিনেমাঅলাতচক্র, যেটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

এ সিনেমায় আরও অভিনয় করেছেন আজাদ আবুল কালাম, মাহতাব হোসেন। প্রযোজনা করেছেন রহিমা বেগম। সিনেমার চিত্রগ্রহণে ছিলেন মাজহারুল রাজু ও শব্দ সংযোজন করেছেন রিপন নাথ।

অলাতচক্র সিনেমা মুক্তির দিনে আরও একটি মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপটের সিনেমা মুক্তি পেতে যাচ্ছে। সিনেমাটি হলো তৌকীর আহমেদ পরিচালিত স্ফুলিঙ্গ

এ সিনেমায় অভিনয় করেছেন একঝাঁক তারকা। তাদের মধ্যে আছেন আবুল হায়াত, ফজলুর রহমান বাবু, শহিদুল আলম সাচ্চু, পরীমনি, জাকিয়া বারী মম, শ্যামল মওলা ও রওনক হাসান।

শেয়ার করুন

এবার প্রযোজনায় আলিয়া

এবার প্রযোজনায় আলিয়া

আলিয়া ভাট। ছবি: সংগৃহীত

আলিয়া ভাটের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠারনের নাম এটারনাল সানশাইন। রোববার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ খবর জানিয়েছেন আলিয়া।

গাঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াদি সিনেমার ট্রেলার মুক্তির পর থেকে প্রশংসায় ভাসছেন আলিয়া ভাট। ট্রেলারে তাকে ভিন্ন অবতারে দেখা গেছে- এমনটাই বলছে দর্শকরা।

আলিয়াও তার ক্যারিয়ারকে আরও কিছু দূর এগিয়ে নিতে চান এবং সেভাবেই এগোচ্ছেন। ২৭ বছর বয়সী এ অভিনেত্রী এবার নাম লিখিয়েছেন প্রযোজনায়। অভিনয়ের পাশাপাশি এখন থেকে প্রযোজনাও করবেন তিনি।

আলিয়া ভাটের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠারনের নাম এটারনাল সানশাইন। রোববার রাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ খবর জানিয়েছেন আলিয়া।

তিনি এটারনাল সানশাইন প্রতিষ্ঠানের লোগোর ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘এটারনাল সানশাইন প্রোডাকশন্স। আমাদের গল্প শোনাতে দাও। আনন্দের গল্প। উষ্ণ গল্প। সত্যিকারের গল্প। নিরন্তর সময়ের গল্প।’

আলিয়া ভাট অভিনীত প্রতীক্ষিত সিনেমা গাঙ্গুবাই কাথিয়াওয়াদি মুক্তি পাবে আসছে জুলাইতে।

শাহরুখ খানের প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান রেড চিলি ফিল্মসের ডার্লিংস সিনেমাতেও দেখা যাবে আলিয়াকে। গৌরী খানের সঙ্গে সিনেমাটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছেন আলিয়া। তবে সিনেমাটি এটারনাল সানশাইন প্রোডাকশন্স-এর প্রোডাকশন নয়।

এছাড়া আলিয়া অভিনীত ব্রহ্মাস্ত্র আরআরআর রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়।

শেয়ার করুন

যাদের ঘরে গেল গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডস

যাদের ঘরে গেল গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ডস

৭৮তম গোল্ডেন গ্লোবের টেলিভিশন বিভাগে সবচেয়ে বেশি চার বিভাগে পুরস্কার জিতেছে ‘দ্য ক্রাউন’। ‘শিটস ক্রিক’ ও ‘দ্য কুইন্স গ্যামবিট’ সিরজ দুটি পুরস্কার জিতেছে দুটি করে বিভাগে।

আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্রের অন্যতম মর্যাদাপূর্ণ অ্যাওয়ার্ড আসর গোল্ডেন গ্লোব। আয়োজনের ৭৮ তম আসর অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ২৮ ফেব্রুয়ারি। মহামারির কারণে এবারের আয়োজনে ছিল না কোনো জমকালো ভাব।

আসরটি ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থাপনা করেছেন টিনা ফে ও অ্যামি পোয়েহলার। টিনা ফে ছিলেন নিউ ইয়র্কের রেইনবো রুমে ও অ্যামি পোয়েহলার যুক্ত হন বেভারলি হিলটন হোটেল থেকে। মনোনীত শিল্পীরা তাদের নিজ নিজ ঘর ও হোটেল থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন।

৭৮তম গোল্ডেন গ্লোবের টেলিভিশন বিভাগে সেরা সিরিজ হলো দ্য ক্রাউন। চার ক্যাটাগরিতে পুরস্কার জিতেছে সিরজটি। কমেডি সিরিজ শিটস ক্রিক ও লিমিটেড সিরিজ দ্য কুইন্স গ্যামবিট পুরস্কার জিতেছে দুটি করে বিভাগে।

নোম্যাডল্যান্ডবোরাট সাবসিকোয়েন্ট মুভিফিল্ম সিনেমা বিভাগে সবচেয়ে বেশি পুরস্কার জিতেছে।

বিজয়ীদের নামের তালিকা:

বেস্ট সাপোর্টিং অ্যাক্টর- মোশন পিকচার্স: ড্যানিয়েল কালুইয়া (জুডাস অ্যান্ড দ্য ব্ল্যাক মেসায়াহ)

বেস্ট অ্যাক্টর- টেলিভিশন, সাপোরটিং রোল: জন বোয়েগা (স্মল অ্যাক্স)

বেস্ট অ্যাক্ট্রেস- টেলিভিশন সিরিজ, মিউজিক্যাল অর কমেডি: ক্যাথরিন ও’হারা (শিটস ক্রিক)

বেস্ট মোশন পিকচার্স – অ্যানিমেটেড: সোউল

বেস্ট অ্যাক্টর – লিমিটেড সিরিজ/ অ্যান্থলজি/ সিরিজ/ মোশন পিকচার মেইড ফর টেলিভিশন: মার্ক রাফালো (আই নো দিস মাচ ইজ ট্রু)

বেস্ট স্ক্রিনপ্লে- মোশন পিকচার: অ্যারন সর্কিন (দ্য ট্রায়াল অফ দ্য শিকাগো সেভেন)

বেস্ট অ্যাক্ট্রেস- টেলিভিশন সিরিজ ড্রামা: এমা করিন (দ্য ক্রাউন)

বেস্ট ওরিজিনাল সং- মোশন পিকচার: লো সি (দ্য লাইফ অ্যাহেড)

বেস্ট ওরিজনাল স্কোর- মোশন পিকচার: জন বাতিস্তে (সোউল)

দ্য ট্রায়াল অফ দ্য শিকাগো সেভেন ও সোউল সিনেমার পোস্টার

বেস্ট অ্যাক্টর- টেলিভিশন সিরিজ, মিউজিক্যাল অর কমেডি: জেসন সুডেইকিস (টেড লাসো)

বেস্ট টেলিভিশন সিরিজ- মিউজিক্যাল অর কমেডি: শিটস ক্রিক

বেস্ট অ্যাক্ট্রেস ইন আ মোশন পিকচার- মিউজিক্যাল অর কমেডি: রোজামুন্ড পাইক (আই কেয়ার এ লট)

বেস্ট অ্যাক্টর ইন আ টেলিভিশন সিরিজ- ড্রামা: জশ ও’কোনোর (দ্য ক্রাউন)

বেস্ট মোশন পিকচার- ফরেন ল্যাঙ্গুয়েজ: মিনারি (যুক্তরাষ্ট্র)

বেস্ট টেলিভিশন সিরিজ- ড্রামা: দ্য ক্রাউন

বেস্ট সাপোরটিং অ্যাক্ট্রেস- মোশন পিকচার: জোডি ফস্টার (দ্য মরিটানিয়ান)

বেস্ট অ্যাক্ট্রেস ইন আ টেলিভিশন সাপোর্টিং রোল: গিলিয়ান অ্যানডারসন (দ্য ক্রাউন)

রোজামুন্ড পাইক ও জোডি ফস্টার

বেস্ট অ্যাক্ট্রেস– লিমিটেড সিরিজ/ অ্যান্থলজি/ সিরিজ/ মোশন পিকচার মেইড ফর টেলিভিশন: আনা টেইলর জয় (দ্য কুইন্স গ্যামবিট)

বেস্ট টেলিভিশন লিমিটেড সিরিজ/ অ্যান্থলজি/ মোশন পিকচার মেইড ফর টেলিভিশন: দ্য কুইন্স গ্যামবিট

বেস্ট অ্যাক্টর ইন এ মোশন ড্রামা: চ্যাডউইক বোসম্যান (মা রেইনি’স ব্ল্যাক বটম)

বেস্ট ডিরেক্টর: ক্লোয়ি ঝাও (নোম্যাডল্যান্ড)

বেস্ট মোশন পিকচার-মিউজিক্যাল অর কমেডি: বোরাট সাবসিকোয়েন্ট মুভি ফিল্ম

বেস্ট অ্যাক্টর ইন এ মোশন পিকচার-মিউজিক্যাল অর কমেডি: সাচা বারোন কোহেন (বোরাট সাবসিকোয়েন্ট মুভি ফিল্ম)

বেস্ট অ্যাক্ট্রেস ইন এ মোশন পিকচার- ড্রামা: আন্দ্রা ডে (দ্য ইউনাইটেড স্টেটস ভার্সেস বিলি হলিডে)

বেস্ট মোশন পিকচার: নোম্যাডল্যান্ড

শেয়ার করুন

ad-close 103.jpg