× হোম জাতীয় রাজধানী সারা দেশ অনুসন্ধান বিশেষ রাজনীতি আইন-অপরাধ ফলোআপ কৃষি বিজ্ঞান চাকরি-ক্যারিয়ার প্রযুক্তি উদ্যোগ আয়োজন ফোরাম অন্যান্য ঐতিহ্য বিনোদন সাহিত্য ইভেন্ট শিল্প উৎসব ধর্ম ট্রেন্ড রূপচর্চা টিপস ফুড অ্যান্ড ট্রাভেল সোশ্যাল মিডিয়া বিচিত্র সিটিজেন জার্নালিজম ব্যাংক পুঁজিবাজার বিমা বাজার অন্যান্য ট্রান্সজেন্ডার নারী পুরুষ নির্বাচন রেস অন্যান্য স্বপ্ন বাজেট আরব বিশ্ব পরিবেশ কী-কেন ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান বিশ্লেষণ ইন্টারভিউ মুজিব শতবর্ষ ভিডিও ক্রিকেট প্রবাসী দক্ষিণ এশিয়া আমেরিকা ইউরোপ সিনেমা নাটক মিউজিক শোবিজ অন্যান্য ক্যাম্পাস পরীক্ষা শিক্ষক গবেষণা অন্যান্য কোভিড ১৯ শারীরিক স্বাস্থ্য মানসিক স্বাস্থ্য যৌনতা-প্রজনন অন্যান্য উদ্ভাবন আফ্রিকা ফুটবল ভাষান্তর অন্যান্য ব্লকচেইন অন্যান্য পডকাস্ট বাংলা কনভার্টার নামাজের সময়সূচি আমাদের সম্পর্কে যোগাযোগ প্রাইভেসি পলিসি

ক্রিকেট
ক্ষমা চাইলেন সাকিব
google_news print-icon

ক্ষমা চাইলেন সাকিব

ক্ষমা-চাইলেন-সাকিব
আম্পায়ারের সঙ্গে তর্ক করছেন সাকিব। ছবি: ডিপিএল
আম্পায়ারের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে একবার স্টাম্পে লাথি মারেন সাকিব। এরপর আরেকবার তর্কে জড়িয়ে স্টাম্প তুলে মাটিতে আছাড় মারেন তিনি।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে (ডিপিএল) আবাহনী লিমিটেড ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচে আম্পায়ারের ওপর মেজাজ হারিয়ে লাথিতে স্টাম্প ভেঙে ফেলার ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব আল হাসান।

ঘটনা মোহামেডানের বেঁধে দেয়া ১৪৬ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামা আবাহনী ইনিংসের পঞ্চম ওভারের।

সাকিব বোলিংয়ে আসলে দ্বিতীয় বলে তাকে ছয় মারেন আবাহনী অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম, পরের বলেই চার। শেষ বলে অবশ্য মুশফিককে পরাস্ত করে তার প্যাড আঘাত হেনেছিল সাকিবের বল।

কিন্তু লেগ বিফোরের জন্য সাকিবের জোরালো আবেদনে সাড়া দেননি আম্পায়ার। আর তাতেই সাকিব লাথি মেরে ভেঙে ফেলেন বোলিং প্রান্তের স্টাম্প।

ষষ্ঠ ওভারের পঞ্চম বলের পর বৃষ্টি নামলে আম্পায়াররা সিদ্ধান্ত নেন খেলা বন্ধ করার। কিন্তু তা মানতে চাননি সাকিব। আম্পায়ারের সঙ্গে তর্ক করতে করতে ক্ষোভ দেখিয়ে বোলিং প্রান্তের তিনটি স্টাম্প তুলে মাটিতে ছুড়ে মারেন তিনি। রাগান্বিত ভঙ্গিতে তর্কও করতে থাকেন আম্পায়ারের সঙ্গে।

ম্যাচশেষে নিজের ফেসবুকে অ্যাকাউন্টে বিষয়টির জন্য ক্ষমা চেয়েছেন সাকিব। ম্যাচের মধ্যে মেজাজ হারানোর জন্য ক্ষমা চান তিনি।

‘প্রিয় ভক্ত ও অনুসারীরা, আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত মেজাজ হারিয়ে সবার জন্য ম্যাচটি নষ্ট করার জন্য, বিশেষ করে তাদের জন্য যারা বাসা থেকে ম্যাচটি দেখছে। আমার মতো একজন অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের এভাবে প্রতিক্রিয়া দেখানো উচিত হয়নি কিন্তু মাঝেমধ্যে দুর্ভাগ্যবশত সব কিছুর বিপরীতে এমন ঘটনা ঘটে যায়। আমি দুই দল, ম্যানেজমেন্ট, টুর্নামেন্টের কর্মকর্তা ও আয়োজক কমিটির কাছে এই মানবিক ভুলের জন্য ক্ষমা চাইছি। ভবিষ্যতে এমনটি আর হবে না। ধন্যবাদ এবং সবাইকে ভালোবাসা,’ লিখেন সাকিব।

সাকিব কোনো শাস্তি পাবেন কি না, সেটি ঠিক করবেন ম্যাচ রেফারি।

আরও পড়ুন:
আম্পায়ারের সঙ্গে তর্ক: লাথিতে স্টাম্প ভাঙলেন সাকিব
সাকিবের বাজে সময় কাটছে না
মোহামেডানকে জেতাতে যেকোনো পজিশনে খেলতে রাজি সাকিব

মন্তব্য

আরও পড়ুন

ক্রিকেট
Tamim took the decision not to be in the World Cup squad Mashrafe

বিশ্বকাপ স্কোয়াডে না থাকার সিদ্ধান্তটা তামিমই নিয়েছেন: মাশরাফি

বিশ্বকাপ স্কোয়াডে না থাকার সিদ্ধান্তটা তামিমই নিয়েছেন: মাশরাফি
মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, ‘অনেকেই দাবি করছেন যে বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে তামিম ইকবালকে বাদ দেয়া হয়েছে। বাস্তবে তার সরে যাওয়ার সিদ্ধান্তটা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের নয়। তামিম নিজেই দলে না থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ‘বাদ দেয়া ও নিজে থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তের মধ্যে উল্লেখযোগ্য পার্থক্য রয়েছে।’

বিশ্বকাপ স্কোয়াডে না থাকার সিদ্ধান্ত তামিম ইকবাল নিজেই নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ দলের সাবেক অধিনায়ক ও বর্তমান সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মুর্তজা। তিনি বলেছেন, স্কোয়াড থেকে তামিম সরে যাওয়ার সিদ্ধান্তটা বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) নয় বরং তার নিজের।

বিসিবি মঙ্গলবার তামিম ইকবালকে ছাড়াই বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করেছে। তাতে বাংলাদেশ দলের অভিজ্ঞা ওপেনার তামিম ইকবাল নেই।

তামিমের বাদ পড়ার কারণ হিসেবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন তার ইনজুরি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেও মাশরাফি ভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরেন।

মাশরাফি বলেন, ‘অনেকেই দাবি করছেন যে তামিমকে বাদ দেয়া হয়েছে। কিন্তু বাস্তবতা হলো তামিম নিজেই দলে না থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

‘বাদ দেয়া ও নিজে থেকে সরে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্তের মধ্যে একটি উল্লেখযোগ্য পার্থক্য রয়েছে।’

দল ঘোষণার পর মাশরাফি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার অ্যাকাউন্টে নিজের মতামত শেয়ার করেছেন। স্কোয়াড ঘোষণার দিনই মঙ্গলবার শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তাকে দেখা যায়। দল নির্বাচন নিয়ে কোনো আলোচনায় তিনি অংশ নিয়েছিলেন কি না- তা এখনও অনিশ্চিত।

বিশ্বকাপ স্কোয়াড থেকে তামিমের বাদ পড়াটা বাংলাদেশের ক্রিকেট মহলে বড় আলোচনার ঘটনা হয়ে উঠেছে। এ ছাড়া দীর্ঘদিন ধরে ইনজুরিতে ভুগছেন এই ওপেনার।

পুনর্বাসনের জন্য এক মাসেরও বেশি সময় ব্যয় করার কারণে তিনি এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে পড়েছিলেন। একই কারণে অধিনায়কত্বও ছাড়তে হয়েছিল তাকে। ইনজুরি পুনরায় দেখা দেয়ার আগে নিউজিল্যান্ড সিরিজে তামিম ইকবাল মাত্র একটি ম্যাচে ব্যাটিং করেন।

মন্তব্য

ক্রিকেট
Never said I cant play more than 5 matches Tamim

কোনো সময় বলিনি ৫ ম্যাচের বেশি খেলতে পারব না: তামিম

কোনো সময় বলিনি ৫ ম্যাচের বেশি খেলতে পারব না: তামিম
বুধবার বিকেলে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে এক ভিডিওবার্তা দেন তামিম। তাকে নিয়ে আলোচনার মধ্যেই দেয়া এ ভিডিও বার্তায় তামিম বলেছেন আরও অনেক কথা। 

‘কোনো সময় কাউকেই বলিনি যে, পাঁচটা ম্যাচের বেশি খেলতে পারব না’- বিশ্বকাপ বাংলাদেশ দল থেকে বাদ পড়া ক্রিকেটার তামিম ইকবাল বলেছেন এ কথা।

তিনি এমন এক মুহূর্তে এ কথা জানালেন যখন তাকে ছাড়াই ঘোষণা করা বিশ্বকাপ দল পাড়ি জমিয়েছে ভারতে।

বুধবার বিকেলে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে এক ভিডিওবার্তা দেন তামিম। তাকে নিয়ে আলোচনার মধ্যেই দেয়া এ ভিডিওবার্তায় তামিম বলেছেন আরও অনেক কথা।

তিনি বলেন, আমি কোনো সময় কোনো মুহূর্তে বলি নাই যে, আমি পাঁচটা ম্যাচের বেশি খেলতে পারব না। এ কথা কোনো সময় হয়নাই। এটা মিথ্যা ও ভুল কথা। কে করছে এটা আমি জানি না। এটা মিথ্যা কথা।

তামিম বলেন, আমি বলেছিলাম যে দেখেন, আমার বডিটা এ রকমই থাকবে। এটা মাথায় রেখে সিলেক্ট করবেন।

এই ক্রিকেটার বলেন, কদিন ধরে যা ঘটছে। তা সবার জানা উচিত। সবাই জানেন আমি রিটায়ার করি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ফিরে আসি। এরপর আমি প্রচণ্ড কষ্ট করি। আমি সব এক্সারসাইজই করেছি। আপনারা বুঝতে পারবেন এটা আসলে সহজ জিনিস না।

তামিম বলেন, আমার কাছে মনে হয়েছে আমাকে কোথাও বাধা দেয়া হচ্ছে। সাত-আটটা কাহিনি হয়েছে।

দর্শকদের উদ্দেশে ভিডিওবার্তার শেষে তিনি আবেগাপ্লুত হয়ে বলেন, আপনার আমাকে ভুলে যাবেন না, মনে রাইখেন।

আগের দিন সাকিব আল হাসানকে অধিনায়ক ঘোষণা করে বিশ্বকাপ ক্রিকেট দল ঘোষণা দেয় বিবিসি।

মন্তব্য

ক্রিকেট
Omar Sanis proverb for not taking Tamim in the team

তামিমকে দলে না নেয়ায় ওমর সানির প্রতিবাদ

তামিমকে দলে না নেয়ায় ওমর সানির প্রতিবাদ ওমর সানি। ফেসবুক থেকে নেয়া ছবি
ওমর সানি তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ‘আপনারা যারা নির্বাচক, আপনাদের খেলা আমি দেখেছি। স্টেডিয়ামে বসে বলুন আর টিভির পর্দায় বলুন, ভীষণ পুরুষত্ব ফুটে উঠতো। আজকে এমন কি হলো, কাপুরুষের মতো ঘোষণা করতে হবে তামিম ইকবাল বাংলাদেশ দলেই নেই!’

আসন্ন ক্রিকেট বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলে নেয়া হয়নি তামিম ইকবালকে। এ নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠেছে সাধারণ মানুষদের মাঝে। শুধু তাই নয়, চলচ্চিত্র তারকা ওমর সানি তার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টির প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

বুধবার দুপুরে নিজের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে তিনি এই প্রতিবাদ জানান।

ওমর সানি লিখেছেন, ‘আপনারা যারা নির্বাচক, আপনাদের খেলা আমি দেখেছি। স্টেডিয়ামে বসে বলুন আর টিভির পর্দায় বলুন, ভীষণ পুরুষত্ব ফুটে উঠতো। আজকে এমন কী হলো, কাপুরুষের মতো ঘোষণা করতে হবে তামিম ইকবাল বাংলাদেশ দলেই নেই!’

এই অভিনেতা আরও লেখেন, ‘মানলাম একজন সুপারস্টারের কথায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, আপনাদের জায়গায় যদি আমার মতো রাষ্ট্রের প্রজা থাকতো তাহলে বলতাম- আমি পদত্যাগ করলাম। সরি, একজন খেলোয়ার তামিম ইকবাল।’

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডে শেষেই বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করা হবে- তা আগেই জানিয়েছিল বিসিবি। তাই খেলা শেষ হতেই মঙ্গলবার বিসিবির অফিশিয়াল ফেসবুক ও ইউটিউব পেজে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করা হয়।

গুঞ্জন সত্যি করে শেষ পর্যন্ত ২০০৭ সাল থেকে বাংলাদেশের ওপেনিংয়ের দায়িত্ব সামলানো অভিজ্ঞ ব্যাটার তামিমকে ছাড়াই বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়। এর কারণ দেখানো হয়েছে তিনি আনফিট। তবে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন নিউজিল্যান্ড সিরিজ দিয়ে ওয়ানডে দলে ফেরা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

আরও পড়ুন:
‘বিশ্বকাপে অধিনায়ক তামিমই’
ওমর সানী বললেন, ‘আসেন খেলি’
অবসরের সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার, তামিম ফিরছেন
প্রধানমন্ত্রীর ডাকে গণভবনে তামিম
তোমার আগুন সবার মধ্যে জ্বলবে: তামিমকে সাকিব

মন্তব্য

ক্রিকেট
Tamim is coming with a video message to talk about something

‘কিছু কথা’ বলতে চান তামিম, আসছেন ভিডিওবার্তা নিয়ে

‘কিছু কথা’ বলতে চান তামিম, আসছেন ভিডিওবার্তা নিয়ে তামিম ইকবাল। ফাইল ছবি
তামিম লিখেছেন, ‘আজকে বাংলাদেশ জাতীয় দল ভারতের উদ্দেশে রওনা দেয়ার পর একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে আমি সবাইকে বিগত কয়েক দিনের ঘটে যাওয়া ব্যাপারে কিছু কথা বলবো।’

চোটের কারণে আনফিট দেখিয়ে তামিম ইকবালকে বাদ দিয়েই বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করা হয়েছে। এ নিয়ে চলছে নানা সমালোচনা। এরই প্রেক্ষাপটে ভক্তদের সামনে নিজের অবস্থান পরিষ্কার করতে চান এই খেলোয়াড়।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের ভেরিফায়েড অ্যাকাউন্টে বুধবার দুপুরে এক পোস্টে এক কথা জানিয়েছেন তিনি।

তামিম লিখেছেন, ‘আজকে বাংলাদেশ জাতীয় দল ভারতের উদ্দেশে রওনা দেয়ার পর একটি ভিডিওবার্তার মাধ্যমে আমি সবাইকে বিগত কয়েক দিনের ঘটে যাওয়া ব্যাপারে কিছু কথা বলবো।’

তিনি লিখেছেন, ‘গত কয়েক দিন অনেক কথাই গণমাধ্যমগুলোতে এসেছে। আমি মনে করি বাংলাদেশ দলের এবং আমার ভক্ত-সমর্থক সবাই পরিষ্কারভাবে সব কিছু জানার অধিকার রাখে।’

এদিন বিকেল ৪টায় ভারতের উদ্দেশে রওনা হচ্ছে বাংলাদেশ বিশ্বকাপ দল। এরপরই ভিডিওবার্তা নিয়ে আসছেন তামিম।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডে শেষেই বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করা হবে- তা আগেই জানিয়েছিল বিসিবি। তাই খেলা শেষ হতেই বিসিবির অফিশিয়াল ফেসবুক ও ইউটিউব পেজে বিশ্বকাপের দল ঘোষণা করা হয়।

গুঞ্জন সত্যি করে শেষ পর্যন্ত ২০০৭ সাল থেকে বাংলাদেশের ওপেনিংয়ের দায়িত্ব সামলানো অভিজ্ঞ ব্যাটার তামিমকে ছাড়াই বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়। তবে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন নিউজিল্যান্ড সিরিজ দিয়ে ওয়ানডে দলে ফেরা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বাংলাদেশ দলে আছেন সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, তাওহীদ হৃদয়, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, শেখ মেহেদি, তানজিদ হাসান তামিম, তানজিম সাকিব, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

মন্তব্য

ক্রিকেট
World Cup squad announced without Tamim

তামিমকে বাদ দিয়েই বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা

তামিমকে বাদ দিয়েই বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা ছবি: ভিডিও থেকে নেয়া
বিসিবির ফেসবুক পেজে একটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। ব্যাতিক্রমী উপস্থাপনায় বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে পারফরম করতে যাওয়া খেলোয়াড়দের চেহারা ভেসে উঠলেও ভিডিওতে ছিলেন না তামিম। বাংলাদেশের বিশ্বকাপ জার্সিও প্রকাশ করা হয়েছে ওই ভিডিওতে।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডে শেষেই বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা করা হবে- তা আগেই জানিয়েছিল বিসিবি। খেলা শেষ হতেই বিসিবির ফেসবুক পেজে ভেসে উঠল একটি ভিডিও। তাতেই এক ব্যাতিক্রমী উপস্থাপনায় দেখা গেল বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে পারফরম করতে যাওয়া খেলোয়াড়দের।

তবে গুঞ্জন সত্যি করে ভিডিওতে ভেসে ওঠেনি তামিম ইকবালের চেহারা। অর্থাৎ, বিশ্বকাপ স্কোয়াডে শেষ পর্যন্ত রাখা হয়নি ২০০৭ সাল থেকে বাংলাদেশের ওপেনিংয়ের দায়িত্ব সামলানো অভিজ্ঞ এ ব্যাটারকে।

তবে বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছেন নিউজিল্যান্ড সিরিজ দিয়ে ওয়ানডে দলে ফেরা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দল: সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম, লিটন দাস, নাজমুল হোসেন শান্ত, তাওহীদ হৃদয়, মেহেদি হাসান মিরাজ, তাসকিন আহমেদ, মুস্তাফিজুর রহমান, হাসান মাহমুদ, শরিফুল ইসলাম, নাসুম আহমেদ, শেখ মেহেদি, তানজিদ হাসান তামিম, তানজিম সাকিব, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

বাংলাদেশের বিশ্বকাপের জার্সিও প্রকাশ করা হয়েছে ওই ভিডিওতে।

আরও পড়ুন:
টাইগারদের হেসেখেলে হারিয়ে কিউইদের সিরিজ জয়
ওয়ানডেতে ৫ হাজার রানের মাইলফলকে মাহমুদুল্লাহ
দুইশর আগেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ

মন্তব্য

ক্রিকেট
Kiwis beat the Tigers to win the series

টাইগারদের হেসেখেলে হারিয়ে কিউইদের সিরিজ জয়

টাইগারদের হেসেখেলে হারিয়ে কিউইদের সিরিজ জয় ছবি: ক্রিকইনফো
বৃষ্টিতে প্রথম ম্যাচ ভেসে যাওয়ার পরের দুই ম্যাচই জিতে সিরিজ জয় করল নিউজিল্যান্ড

ওয়ানডে ক্রিকেটে ১৭২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে যেকোনো দলেরই বেগ পাওয়ার কথা নয়। বেগ পেতে হয়নি নিউজিল্যান্ডেরও। বাংলাদেশের চেয়ে দুই বল বেশি খেলে, অর্থাৎ ৩৪.৫ ওভারে মাত্র তিন উইকেট হারিয়ে জয়ের বন্দরে নোঙর করে কিউইদের ইনিংস। ফলে টাইগারদের সাত উইকেটে হারিয়ে ২-০তে সিরিজ জয় করল নিউজিল্যান্ড।

বাংলাদেশের দেয়া লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হয় ব্ল্যাক ক্যাপসদের। তবে ৪৯ রানে পরপর দুই উইকেট নেন শরিফুল ইসলাম। ব্যক্তিগত ২৮ রানে ওপেনার ফিন অ্যালেন ফেরার পরের বলে সাজঘরের পথ ধরেন ডিন ফক্সক্রফ্ট।

এর পরের উইকেটটি পড়ে দলীয় ১৩০ রানের মাথায়। নাসুমের ঘুর্ণিতে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরার আগে ৭০ রান করেন উইল ইয়ং। পরে চার ও পাঁচ নম্বরে ব্যাট করতে নামা হেনরি নিকোলস ৫০ ও টম ব্লান্ডেল ২৩ রানে অপরাজিত থেকে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন।

এর আগে টস জিতে আজ আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সাকিব-লিটনের অনুপস্থিতিতে টাইগারদের নেতৃত্ব দেয়া নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে শুরু ব্যাট করতে নেমে সাড়ে ৩৪ ওভারেই গুটিয়ে গেছে বাংলাদেশের ইনিংস। সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৭১ রান তুলতে সক্ষম হয়েছেন ব্যাটাররা।

এর মধ্যে অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া নাজমুল হোসেন শান্তর ব্যাট থেকেই এসেছে বলার মতো একটি স্কোর। ৮৪ বল খেলে দশটি চারের সাহায্যে ৭৬ রান তুলেছেন তিনি। বাকিদের অবস্থা হযবরল।

আজ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে অভিষেক হয়েছে জাকির হোসেন। তবে অভিষেকটা রঙিন হয়নি বাঁহাতি এই ওপেনারের। অ্যাডাম মিলনের বলে বোল্ড হয়ে ৫ বলে ১ রান করে ফিরতে হয়েছে তাকে। জাকিরের পর তৃতীয় ওভারের প্রথম বলে তানজিদ হাসান তামিমও সাজঘরে ফিরলে মাত্র আট রানে দুই উইকেট হারিয়ে খানিকটা চাপে পড়ে যায় বাংলাদেশ। পরে কয়েকটি অধিনায়ক শান্ত তাওহীদ হৃদয়, মুশফিক ও মাহমুদুল্লাহকে নিয়ে উইকেটে থিতু হওয়ার চেষ্টা করলে খুব বড় জুটি তিনি কারও সঙ্গেই গড়তে পারেননি। আর শেষ দিকের ছিল ব্যাটারদের একের পর এক যাওয়া-আসা। ফলে ইনিংস বেশি বড় করতে পারেনি বাংলাদেশ।

তাওহীদ হৃদয়ের সঙ্গে শান্তর জুটিতি ভালো কিছুরই ইঙ্গিত দিয়েছিল। তবে সেটি বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। দলীয় ৩৫ রানে ফিরে যান হৃদয়। অ্যাডাম মিলনের অফসাইডের বাইরে করা বলটি কভারের ওপর দিয়ে উঠিয়ে দিতে চেয়েছিলেন হৃদয়। কিন্তু গতির অভাবে তা পয়েন্ট অঞ্চলে ক্যাচ হয়ে যায়। উইল ইয়াং তা লুফে নিলে ১৭ বলে ১৮ রান করে ফিরতে হয় হৃদয়কে।

এরপর মুশফিকুর রহিম ক্রিজে এসেই দুই ছক্কা হাঁকিয়ে বড় সংগ্রহের আভাস দেন। তবে লকি ফার্গুসনের বলে ইনসাইড এজে বোল্ড হয়ে ফিরতে হয় তাকেও। অবশ্য মুশফিকের সঙ্গে শান্তর এই জুটিটিই ইংনিস সেরা ৫৩ রানের জুটি।

মুশফিক ২৫ বলে ১৮ রান করে প্যাভিলিয়নে ফিরলে উইকেটে আসেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। এর মধ্যে ৫৫ বলে নিজের হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন শান্ত। আর ওয়ানডেতে নিজের পাঁচ হাজার রান পূর্ণ করেন মাহমুদুল্লাহ। তবে এর কিছু পরই মিলনের বলে উইকেটের পেছনে টম ব্লান্ডেলের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন রিয়াদ। ২৭ বলে ২১ রান করে ফিরলে শান্তর সঙ্গে তার ৪৯ রানের জুটির সমাপ্তি ঘটে।

এরপর শুরু হয় বাকি ব্যাটারদের ক্রিজে আসা-যাওয়ার মিছিল। সেই মিছিলে যোগ দেন শেখ মেহেদী, নাসুম আহমেদ, হাসান মাহমুদ, শরীফুল ইসলাম ও খালেদ আহমেদ।

এর মধ্যে ওয়ানডেতে নিজের সর্বোচ্চ রানের ইনিংসটি শেষ করে ফিরে যান অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হওয়া শান্তও। তিনি ফিরে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর গুটিয়ে যায় বাংলাদেশের ইনিংস।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ- ১৭১/১০ (৩৪.৩ ওভার) (শান্ত ৭৬; মিলনে ৪/৩৪)।

নিউজিল্যান্ড: ১৭৫/৩ (৩৪.৫ ওভার) (ইয়ং ৭০, নিকোলস ৫০*; শরিফুল ২/৩২)।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: অ্যাডাম মিলনে।

আরও পড়ুন:
দুইশর আগেই গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ

মন্তব্য

ক্রিকেট
Mahmudullah reached the milestone of 5000 runs in ODIs

ওয়ানডেতে ৫ হাজার রানের মাইলফলকে মাহমুদুল্লাহ

ওয়ানডেতে ৫ হাজার রানের মাইলফলকে মাহমুদুল্লাহ বাংলাদেশের ডানহাতি অলরাউন্ডার মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। ছবি: সংগৃহীত
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মঙ্গলবারের ম্যাচে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এই মাইলফলক স্পর্শ করেন। এর আগে তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশের হয়ে এই মাইলফলকে পৌঁছেছিলেন।

চতুর্থ বাংলাদেশি হিসেবে ওয়ানডেতে ৫ হাজার রানের মাইলফলকে পৌঁছে গেলেন ডানহাতি অলরাউন্ডার মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। এর আগে তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশের হয়ে এই মাইলফলকে পৌঁছেছিলেন।

সফররত নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মঙ্গলবার ঢাকায় তৃতীয় ওয়ানডেতে ৫ হাজার রান ছুঁতে মাহমুদউল্লাহর প্রয়োজন ছিল মাত্র ১ রান। তিনি অনায়াসে সেই ১ রান নিশ্চিত করেন। আর সে সুবাদে চতুর্থ বাংলাদেশি খেলোয়াড় হিসেবে এই কৃতিত্ব অর্জন করেন তিনি।

নিউজিল্যান্ড সিরিজে অংশগ্রহণ নিয়ে প্রাথমিক অনিশ্চয়তা সত্ত্বেও ৩৭ বছর বয়সী এই ব্যাটার শেষ পর্যন্ত মাঠে নামেন এবং দ্বিতীয় ওয়ানডেতে তিনি ৪৯ রান করেন।

আরও পড়ুন:
আমেরিকান দূতাবাসে হাসের সঙ্গে খেললেন সাকিব
শুরুতেই বিপাকে পড়া বাংলাদেশ এগুচ্ছে ধীরে
সিরিজ হার এড়ানোর লক্ষ্যে মাঠে নামছে বাংলাদেশ
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে বোলিংয়ে বাংলাদেশ
ঘরোয়া ক্রিকেট থেকে সাময়িক নিষিদ্ধ নাসির

মন্তব্য

p
উপরে