কুড়িয়ে পাওয়া দুই লাখের বেশি টাকা ফেরত দিলেন যুবক

কুড়িয়ে পাওয়া দুই লাখের বেশি টাকা ফেরত দিলেন যুবক

কুড়িয়ে পাওয়া টাকা ফেরত দিচ্ছেন জুয়েল। ছবি: নিউজবাংলা

‘টাকাটা ফেরত দিয়ে আমার খুব ভালো লাগছে। এই টাকায় হয়তো আমার উপকার হতো, কিন্তু যার টাকা তার অনেক বড় ক্ষতি হতো।’ 

রংপুর সেন্ট্রাল রোডের নবাবগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির সামনে কুড়িয়ে পাওয়া ২ লাখ ৩৮ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছেন এক ব্যক্তি। ওই টাকার সঙ্গে ১ লাখ ৮০ হাজার টাকার একটি চেকও ছিল।

যিনি টাকা ফেরত দিয়েছেন তার নাম আজিজুর রহমান জুয়েল। জুয়েল র‌্যাংগস পেট্রোলিয়াম লিমিটেডের (শেল লুব্রিকেন্ট) ডেপুটি ম্যানেজার পদে চাকরি করছেন।

জুয়েল সাংবাদিকদের বলেন, ‘রোববার বেলা দেড়টার দিকে নগরীর নবাবগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়িসংলগ্ন জুম্মাপাড়া রোডে কাগজে মোড়ানো পড়ে থাকা টাকাগুলো পাই। এরপর বেশ চিন্তিত হয়ে পড়ি। কুড়িয়ে পাওয়া টাকা এবং যে চেকটি পেয়েছিলাম, ওই চেকের পেছনে একটি মোবাইল ফোন নম্বর ছিল। সেই নম্বরে ফোন করি।

‘ফোনের ওপাশ থেকে আলমগীর হোসেন নামে একজন পরিচয় দেন। টাকাগুলো তার বলে তিনি দাবি করেন। এরপর কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে সত্যতা মিললে তাকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় বিকেল ৪টার দিকে টাকা ও চেক ফেরত দেয়া হয়।

‘টাকাটা ফেরত দিয়ে আমার খুব ভালো লাগছে। এই টাকায় হয়তো আমার উপকার হতো, কিন্তু যার টাকা তার অনেক বড় ক্ষতি হতো।’

টাকা পাওয়ার পর আলমগীর হোসেন বলেন, ‘আমি রংপুরে প্রাণ আরএফএল গ্রুপের এরিয়া ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত আছি৷ টাকাগুলো নিয়ে মোটরসাইকেলে করে ব্যাংকের দিকে যাচ্ছিলাম। কখন টাকা পড়ে গেছে তা বলতে পারি না। খুব দুশ্চিন্তায় ছিলাম।

‘এখনো ভালো মানুষ আছে। যার দৃষ্টান্ত আজিজুর রহমান। আমি ভীষণ আনন্দিত।’

শেয়ার করুন

মন্তব্য